Monday, May 23, 2022
Homeরাজ্যউচ্চ প্রাথমিকে ছয় আত্মীয়ের চাকরি চাই, হিজবুলের নামে হুমকি সিডি রায়গঞ্জে

উচ্চ প্রাথমিকে ছয় আত্মীয়ের চাকরি চাই, হিজবুলের নামে হুমকি সিডি রায়গঞ্জে


#রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জ প্রেস ক্লাবে উদ্ধার হল রহস্যময় সিডি৷ আর সেই সিডি চালাতেই চক্ষু চড়কগাছ পুলিশ কর্তাদের৷ কারণ সিডি-তে জঙ্গি সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিনের নাম করে হুমকি দেওয়া হয়েছে৷ তবে যে দাবিতে হুমকি দেওয়া হয়েছে, তা রীতিমতো অদ্ভুত ধরনের৷ ফলে নিছক মজা করে আতঙ্ক ছড়ানোর উদ্দেশেই কেউ এই সিডি তৈরি করে ফেলে রেখে গিয়েছে কি না, তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ৷ যেহেতু হিজবুল মুজাহিদিনের মতো জঙ্গি সংগঠনের নাম জড়িয়ে দেওয়া হয়েছে, তাই বিষয়টিকে একেবারে হাল্কা ভাবেও নিতে পারছেন না জেলা পুলিশ কর্তারা৷

এই সিডি উদ্ধারের পরই সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে রায়গঞ্জ পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার সুমিত কুমার সহ পুলিশ কর্তাদের বিষয়টি জানানো হয়।রায়গঞ্জ থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী প্রেস ক্লাবে এসে পৌঁছয়। রায়গঞ্জ পুলিশ  ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

শনিবার সকাল সাড়ে আটটার নাগাদ  সাংবাদিকরা প্রেসক্লাবে এসে বারান্দায় একটি  সিডি পড়ে থাকতে দেখেন। সিডিটি প্লাস্টিকে মোড়া ছিল। তার গায়ে লেখা ছিল, ‘এটি পাওয়া মাত্রই সব চ্যানেলে দেখাতে হবে। নইলে হিংসার শিকার হতে হবে।’ সিডি চালিয়ে দেখা যায়, তৌসিব আলি নামে ব্যক্তি ভিডিও বার্তায় বলছেন, তার নিকট আত্মীয় ছ’ জন উচ্চ প্রাথমিকে চাকরি দিতে হবে৷  তা না  হলে উচ্চ প্রাথমিকে  রাজ্যের ১৩ হাজারের বেশি চাকরি প্রার্থীকে হত্যা করা হবে। ১৫ অগাস্ট থেকে এই হত্যালীলা শুরু হবে বলেও হুমকি দেয় ওই ব্যক্তি।

এই বক্তব্য দেখার পর সাংবাদিকরাও  উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন। রায়গঞ্জ থানার আইসি সুরজ থাপা দীর্ঘক্ষণ ধরে বক্তব্যটি শোনেন। পরে পুলিশ সেই সিডিটি বাজেয়াপ্ত করে । ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।উত্তর দিনাজপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি অমিত সরকার জানান, ‘সকালে সাংবাদিকরা প্রেস ক্লাবে এসে সিডিটি দেখতে পান। সিডি-র সঙ্গে একটি হুমকি চিঠি আছে। প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে রায়গঞ্জ থানার পুলিশকে  বিষয়টি জানানো হয়।পুলিশ সিডিটি বাজেয়াপ্ত করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।’

রায়গঞ্জ পুলিশ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অর্ষ ভার্মা জানান, ‘ আজ সকালে উত্তর দিনাজপুর প্রেস ক্লাবে একটি হুমকি সিডি পাওয়া গিয়েছে। সিডিটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পুলিশ বিষয়টি কড়া হাতে মোকাবিলা করবে।’ খবর পেয়ে গোয়ান্দা বিভাগের কর্তারাও প্রেস ক্লাবে ছূটে আসেন। গোয়ান্দা বিভাগ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। সত্যিই কোনও জঙ্গি সংগঠন এই কাজ করল নাকি তাদের নাম করে অন্য কেউ এমন আতঙ্ক ছড়ানোর চেষ্টা করল,  তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ৷ বিশেষত বাংলাদেশ এবং বিহার সীমান্ত লাগোয়া রায়গঞ্জে এই সিডি উদ্ধার হওয়া ভাবাচ্ছে পুলিশ কর্তাদের৷



Source link

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments