Tuesday, May 24, 2022
Homeকলকাতামেট্রোয় পকেটমার! যাত্রীর পকেট খালি করেও শেষরক্ষা হল না চোরের, ধরা পড়ল...

মেট্রোয় পকেটমার! যাত্রীর পকেট খালি করেও শেষরক্ষা হল না চোরের, ধরা পড়ল হাতেনাতে


#কলকাতা: দুপুর ১২ টা ৪০ মিনিট।মেট্রো রেল ময়দান স্টেশন ছেড়ে পার্ক স্ট্রিটের দিকে এগোচ্ছে। হঠাৎ এক ব্যক্তি ‘মোবাইল চলে গেল’ বলে চিৎকার জুড়ে দিলেন।

সবাই মিলে হাতেনাতে ধরে ফেললেন মোবাইল চোরকে।  শনিবার দুপুরে সঞ্জীব শাসমল ময়দান মেট্রো স্টেশন থেকে দক্ষিণেশ্বর গামী মেট্রোতে চড়েন। তাঁর কথা অনুযায়ী প্যান্টের বাম পকেটে মোবাইল ফোনটি ছিল।

ট্রেনটি যথেষ্ট ফাঁকা ছিল বলে জানিয়েছেন তিনি। কিন্তু ট্রেনের দরজার সামনে অযথা বেশ কয়েকজন মানুষ ভিড় করেছিল। সেই সুযোগে পাশে যাত্রী সেজে দাঁড়িয়ে থাকা পকেটমার মোবাইলটা তুলে নেয়।

আরও পড়ুন- সাতটি সোনার বার এল বাংলাদেশ থেকে! সেন্ট্রাল এভিনিউতে বড় সাফল্য শুল্ক দফতরের

সঞ্জীব বাবু বলেন, ‘হঠাৎ করে অনুভব করলাম পকেটটা হালকা হয়ে গেল।পকেটে হাত দিয়ে দেখি মোবাইল নেই। চিৎকার করে উঠতেই পায়ের কাছে মোবাইলটা ফেলে দিল। আমি ১০০% নিশ্চিত পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ব্যক্তি মোবাইল ফোন নিয়েছিল।’

ট্রেনটি সেই সময় এসপ্ল্যানেড মেট্রো স্টেশনে ঢুকছিল। তার পর সঞ্জীববাবু এবং সঙ্গে থাকা অন্যান্য যাত্রীরা সেই পকেটমার সন্দেহে ধরা ব্যক্তিকে স্টেশনে নামান। স্টেশনে নামার পর সবাই মিলে পকেটমারকে রেল পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

রেল পুলিশ স্টেশন মাস্টারের ঘরে নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ওই পকেটমার স্বীকার করে যে মোবাইলটা পকেটে থেকে সে তুলেছিল। সঙ্গে সঙ্গে ময়দান থানার পুলিশ এসে পকেটমারকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে।জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, পকেটমারের নাম রাজেশ শেখ। নরেন্দ্রপুর থানার কন্দর্পপুর এলাকাতে থাকে।

আরও পড়ুন- রবীন্দ্র সরোবরে পেট্রোলচালিত স্পিড বোট! ‘কাণ্ড’ দেখে অবাক পরিবেশপ্রেমীরা

ব্যাগ পরীক্ষা করে অন্য কোনও মোবাইল অবশ্য পাওয়া যায়নি। মোবাইলের পুরনো ব্যাটারি পাওয়া গিয়েছিল। সাধারণ যাত্রীরা এইরকম বিষয় নিয়ে বেশ স্তম্ভিত হয়ে যান।

মেট্রোরেলে কীভাবে পকেটমার ঢুকে পড়তে পারে? যেখানে সিকিউরিটি আঁটোসাঁটো। সিসিটিভি ক্যামেরা থেকে আরম্ভ করে সাদা পোশাকের পুলিশ এবং সিকিউরিটি ফোর্স ঘুরে বেড়াচ্ছেন সর্বদা। সেখানে পিক পকেট হয়ে যাওয়াটা নিরাপত্তা নিয়ে যথেষ্ট প্রশ্ন তোলে।

ময়দান থানা রাজেশকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বসিয়ে রাখে। এত বড় ঘটনার পরও সঞ্জীববাবু পুলিশের কাছে লিখিত কোন অভিযোগ দায়ের করেনি। পুলিশ খতিয়ে দেখছে, এর আগে মেট্রোয় কোনও পকেটমারির ঘটনায় এই রাজেশের যোগাযোগ আছে কিনা!

Published by:Suman Majumder

First published:

Tags: Kolkata metro, Pick pocket



Source link

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments